আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস- ২০২২ উপলক্ষ্যে গ্রামীণ ছয়জন নারীকে সম্মাননা।


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ১৩/১০/২০২২, ৯:০৫ PM / ১৩৭
আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস- ২০২২ উপলক্ষ্যে গ্রামীণ ছয়জন নারীকে সম্মাননা।

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি।

আগামী ১৫ অক্টোবর আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস উপলক্ষে ‘‘জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ও নারীর বহুমাত্রিক ঝুঁকি, এখনই প্রয়োজন জরুরী পদক্ষেপ গ্রহণ’’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার (১৩অক্টোবর ২০২২) সকালে খাগড়াছড়ি সদর ভাইবোনছড়া ইউনিয়স্থ মিলেনিয়াম ভাইবোনছড়া উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক গ্রামীণ দিবস উদযাপন কমিটি, খাগড়াছড়ি জেলা শাখা, খাগড়াপুর মহিলা কল্যাণ সমিতি (কেএমকেএস), তৃণমূল উন্নয়ন সংস্থা, আলো ও জাবারাং কল্যাণ সমিতির যৌথ আয়োজনে ৬ (ছয়) জন গ্রামীণ নারীকে সম্মাননা স্মারক, নগদ অর্থ প্রদান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

খাগড়াপুর মহিলা কল্যাণ সমিতি (কেএমকেএস)’র নির্বাহী পরিচালক এবং গ্রামীণ নারী দিবস উদযাপন কমিটির সভাপতি শেফালিকা ত্রিপুরা’র সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য বাসন্তি চাকমা।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন জাবারাং কল্যাণ সমিতির নির্বাহী পরিচালক এবং গ্রামীণ নারী দিবস উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা।

দিবসটি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ভাইবোনছড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান পরিমল ত্রিপুরা, মিলেনিয়াম ভাইবোনছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তাতুমনি চাকমা, নারী উদ্যোক্তা শাপলা দেবী ত্রিপুরা, নারীনেত্রী নমিতা চাকমা, ইউপি সদস্য গঙ্গা দেবী চাকমা, কেএমকেএস’র প্রকল্প সমন্বয়কারী গীতিকা ত্রিপুরা ও জাবারাং কল্যাণ সমিতির কর্মসূচি সমন্বয়কারী বিনোদন ত্রিপুরা প্রমূখ।

কেএমকেএস সংস্থার এডভোকেসি অফিসার পিংকি বড়ুরা’র সঞ্চালনায় দিবসটি উপলক্ষে প্রতিপাদ্য বিষয়ের উপর ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন কেএমকেএস সংস্থার এআরএডি-সিএইচটি প্রকল্পের সমন্বয়কারী মণীষা তালুকদার।

গ্রামীণ সমাজে নারী নেতৃত্ব ও শিক্ষায় অবদান রাখায় ভাইবোনছড়া ইউনিয়নের ছোটবাড়ি গ্রামের কিনাশ্রী ত্রিপুরা, পেরাছড়া ইউনিয়নের হেডম্যান পাড়ার রাঙ্গাবি চাকমা, কমলছড়ি ইউনিয়নের খ্যাংদং পাড়ার ক্রাঞো মারমা, নারী উদ্যোক্তা হিসেবে গোলাবাড়ি ইউনিয়নের রাঙ্গাপানিছড়া পাড়ার ডালিয়া চাকমা, ভাইবোনছড়া ইউনিয়নের পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার শর্মিলা দে এবং সংগ্রামী নারী হিসেবে ভাইবোনছড়ার ছোটবাড়ি পাড়ার রূপা ত্রিপুরা প্রত্যেককে সম্মাননা স্মারক, সম্মাননা সনদ ও নগদ ২হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য বাসন্তি চাকমা বলেন, প্রাকৃতিক পরিবেশ আজ বিপর্যস্ত। বর্ষা কিংবা শীত এখন আর তাদের সময়ে আসে না। কৃষকদের উৎপাদনে ব্যহত হচ্ছে। জলবায়ু পরিবর্তনের এই প্রভাবে সবচেয়ে বেশি কষ্ট পাচ্ছে আমাদের গ্রামীণ নারী। এত প্রতিকূলতার মধ্যেও আমাদের মায়েরা তাদের সন্তানদের মানুষের মতো মানুষ গড়ার স্বপ্ন নিয়ে সমাজে সংগ্রাম করে যাচ্ছে। তাদের এই অবদানের জন্য সামর্থ্যের মধ্যে ৬জন নারীকে সম্মাননা করা হচ্ছে। কিন্তু সকলেই এই সম্মান প্রাপ্য। আগামী দিনের নেতৃত্বে নারী সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে।

 

 

বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন সম্পন্ন।