গর্জনিয়ায় বন বিভাগের জায়গা দখল করে বসতঘর নির্মানের চেষ্টা অবৈধ দখল উচ্ছেদের দাবি।


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ১২/০৯/২০২২, ১:১০ PM / ১৩
গর্জনিয়ায় বন বিভাগের জায়গা দখল করে বসতঘর নির্মানের চেষ্টা অবৈধ দখল উচ্ছেদের দাবি।

আবদুর রশিদ নাইক্ষ্যংছড়ি।

 

রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়নের পুর্ব জুমছড়ি লম্বা ঘোনা এলাকায় বন বিভাগের জায়গা দখল করে বসতঘর নির্মানের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে আজগর আলী নামের এক ব্যক্তি। আজগর আলী ইউনিয়নের পুর্ব জুমছড়ি ২ নং ওয়ার্ড মৃত আহমদ নবীর পুত্র বলে স্থানীয়রা জানান।
জানা যায় কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের আওতাধীন বাকখালী রেঞ্জের ঘিলাতলী বনবিটের আওতাধীন পুর্ব জুমছড়ি লম্বা ঘোনা এলাকায় বন বিভাগের সরকারি সামাজিক বনায়নের জায়গা দখল করে আজগর আলী নামের এক ব্যক্তি বসতঘর নির্মাণ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে একটি ঝুপড়ি ঘর গাছ বাশ ও পলিথিন দিয়ে কিছু অংশ নির্মাণ করেছেন। এতে বাঁধা দিতে গিয়ে সামাজিক বনায়নের প্লট বরাদ্দ পাওয়া লোকজন সহ স্থানীয় অনেকে মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন। তবে আজগর এবিষয়ে এই প্রতিবেদকের নিকট মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বসতঘর নির্মাণ এর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি সত্য। কিন্ত আরো অনেকে বন বিভাগের জায়গায় এভাবে বসতঘর নির্মাণ করেছেন।

কিন্তু আমি আংশিক ঘর নির্মানের চেষ্টা করেছি। তাও স্থানীয় লোকজন বাঁধা দেওয়ার কারনে নির্মান করতে পারিনি। আমি ও চাই বন বিভাগের জায়গা থেকে সকলে উচ্ছেদ হউক।স্থানীয় হেডম্যান জয়নাল জানান বনবিভাগের জায়গায় ঘর বাধার বিষয়টি উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। পাশাপাশি তাকে নিষেধ ও করা হয়েছে।

এবিষয়ে ঘিলাতলী বনবিটের দায়িত্ব রত বিট কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন এর মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি অবৈধ দখলের কথা স্বীকার করে বলেন যে সকল লোকজন বনবিভাগের জায়গা দখল করে বসত ঘর নির্মানের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এবং দখল করেছেন, তাদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। অচিরেই তাদের বিরুদ্ধে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ মতে অভিযান চালানো হবে।

 

 

 

সংসদ উপনেতা সাজেদা চৌধুরী আর নেই।