পাহাড়ের শান্তি, সম্প্রীতি, সোহাদ্য উন্নয়নের পূর্ব শর্ত


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ১৪/০৪/২০২৪, ১১:১৪ PM / ৩২
পাহাড়ের শান্তি, সম্প্রীতি, সোহাদ্য উন্নয়নের পূর্ব শর্ত

শুভাশীষ দাশ প্রতিনিধি রামগড় (খাগড়াছড়ি)

শান্তি, সোহাদ্য, সম্প্রীতি পাহাড়ের উন্নয়নের পূর্বশর্ত। আজ পার্বত্য অঞ্চলের সকল সম্প্রদায় বণাঢ্য আয়োজনে ঐতিহ্যবাহী ধর্মীয় সামাজিক অনুষ্ঠান বিজু, বৈসু,সংগ্রাই ও নববর্ষ উদযাপন করছে, অথচ পার্বত্য অঞ্চলে এমন এক সময় আমরা অতিবাহিত করেছি যখন ধনী, গরিব পার্বত্য অঞ্চলের অস্থিতিশীল পরিবেশের কারণে নিজ নিজ ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠান পালন করতে পারেনি। পার্বত্য চট্টগ্রামের মা প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার আন্তরিক চেষ্টায় আজ পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তির সুবাতাস বইছে। সকল সম্প্রদায় আজ বর্ণাঢ্য আয়োজনে তাদের নিজ নিজ ধর্মীয় সামাজিক অনুষ্ঠান পালন করছে। যেকোনো মূল্যে শান্তি সম্প্রীতি অটুট রেখে দেশকে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে।
আজ রামগড় বিজয় ভাস্কর্যের সামনে বিকেল পাঁচটায় মারমা সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী সাংগ্রায়ের শোভাযাত্রার শুভ উদ্বোধন করে
পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি এসব কথা বলেন।
কেন্দ্রীয় মারমা উন্নয়ন সংসদের আয়োজনে সাংগ্রাই উদযাপনের বিভিন্ন পর্যায়ের অনুষ্ঠানমালায় খাগড়াছড়ি সদর, পানছড়ি, দীঘিনালা, মানিকছড়ি, লক্ষীছড়ি, গুইমারা, মহালছড়ি, রামগড় ও মাটিরাঙ্গা উপজেলার মারমা সাম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ ও তরুণ তরুণীরা অংশগ্রহণ করেন।

শোভাযাত্রা শেষে সাংগ্রাই অনুষ্ঠানের দ্বিতীয়ার্ধে
বিশেষ অতিথি গুইমারার পদাতিক ও রিজিয়ন
কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল রাইসুল ইসলাম এসপিপি, এনডিসি,এএফডব্লিউসি, পিএসসি রামগড় স্টেডিয়ামে মারমা সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী জল কেলির উদ্বোধন করেন। এবং মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জলন করেন ও মারমা সম্প্রদায়ের একটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন। পরে অতিথিরা মারমা সংস্কৃতির বর্ণাঢ্য সংস্কৃতি অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

এ সময় খাগড়াছড়ি ডিজিএফআই কমান্ডার কর্নেল আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ আরিফ এ এফ ডব্লিউ সি, পিএসসি, খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মোঃ শহীদুজ্জামান, জেলা পুলিশ সুপার মুক্তাধর পিপিএম( বার),খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মংসুপ্রু চৌধুরী অপু, খাগড়াছড়ি সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজুরি চৌধুরী, খাগড়াছড়ি মং সার্কেলের রাজা সাচিং প্রু চৌধুরী, রামগড় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতা আফরিন, রামগড় উপজেলা চেয়ারম্যান বিশ্ব প্রদীপ কুমার কারবারি, পৌর মেয়র রফিকুল আলম কামাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।