পাহাড়ের গ্রামগুলি শহরে পরিনত করা হবে : পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ২৬/০২/২০২২, ১:৪৭ AM / ১২
পাহাড়ের গ্রামগুলি শহরে পরিনত করা হবে : পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং

মোঃ শহীদুল ইসলাম রানা, বান্দরবান সংবাদদাতা:
পার্বত্য এলাকার পর্যটন শিল্প বিকাশে সরকার বদ্ধ পরিকর এবং পাহাড়ের গ্রামকে ক্রমন্বয়ে শহরে রুপান্তরে আওয়ামী লীগ সরকার আন্তরিক ও নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় সরকারীভাবে নতুন নতুন পর্যটন কেন্দ্র নির্মান হচ্ছে।

শুক্রবার ২৫ ফেব্রুয়ারী বান্দরবানে থানচি উপজেলা সাড়ে ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের নব নির্মিত শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ৫শ বিশিষ্ট মাল্টি পারপাশ অডিটরিয়াম হল শুভ উদ্ভোধনকালে পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর একথা বলেন।

এ সময় মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং আরো বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে পার্বত্য এলাকার সর্বত্র বিদ্যুতের আলো ছড়িয়ে পড়েছে। বিদ্যুতের কারণে জনগনের জীবন যাত্রা মান উন্নত হয়েছে। যে সকল স্থানে সড়ক যোগাযোগ নেই, বিদ্যুৎ নেই, সেখানে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড, বান্দরবান জেলা পরিষদ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর এর মাধ্যমে অভ্যন্তরীন সড়ক, যোগাযোগ, শিক্ষা, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানসহ অনেক প্রকল্প গ্রহন বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এছাড়া ও পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড মাধ্যমে স্থানীয় বাসিন্দাদের তিন পার্বত্য জেলায় বিনামুল্যে ৪০হাজার সোলার হোম সিস্টেম প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। যার মধ্যে বান্দরবানের ৭ উপজেলায় বিতরণ হবে ১৪ হাজার সোলার।দিনব্যাপী পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড অর্থায়নের ৩ কোটি ৩৮ লক্ষ টাকা ব্যয়ে স্কুল ভবন, ছাত্রাবাস, বৌদ্ধ বিহার ভবন মোট ৮টি প্রকল্প। পার্বত্য জেলা পরিষদের গীর্জা ভবন, বৌদ্ধ বিহার ক্যাংঘরসহ মোট ৮ টি প্রকল্পের মোট ৩ কোটি ৭৩ লক্ষ ৭২ হাজার টাকা। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরে ৮ কোটি ৫১ লক্ষ টাকা ব্যয়ের একটি প্রকল্প শুভ উদ্ভোধন ও ভিত্তিপ্রস্ত উদ্ভোধন করেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান থোয়াইহ্লামং মারমা সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক রাজস্ব) মোহাম্মদ শেখ ছাদেক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (রাজস্ব) মো: নাজিম উদ্দিন, জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সত্যহা পাজ্ঞি  ত্রিপুরা, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বান্দরবান ইউনিটের প্রকল্প পরিচালক আব্দুল আজিজ, নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াছির আরাফাত, এলজিইডি নির্বাহী প্রকোশলী মো: জিল্লুর রহমান, জেলা পরিষদে নির্বাহী প্রকৌশলী মো: জিয়াউর রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতাউল গনি ওসমানি, জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষী পদ দাশ,তিং তিং ম্যা সহ উপজেলা সরকারী দপ্তরে কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।নতুন নির্মিত অডিটরিয়ান হলে এক মত বিনিময় সভা শেষে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের অর্থায়নের প্রশিক্ষিত অসহায় নারীদের সেলাই মেশিন, কৃষি উপকরনের স্প্রে মেশিন, ছাগল, শীত বস্ত্র কম্বল, ভিজিডি কার্ডধারীদের চাউল বিতরন করেন।