প্রকাশিত সংবাদের বিরুদ্ধে রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী সমিতির প্রতিবাদ


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ১৪/০৬/২০২১, ৯:৪৩ PM / ১৩
প্রকাশিত সংবাদের বিরুদ্ধে রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী সমিতির প্রতিবাদ

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি:

গত শনিবার (১২জুন) ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় অনলাইন পত্রিকা ‘‘একুশের ডাক’’র অনলাইন ভার্ষণের নিউজ পোর্টালে ‘‘রাঙামাটিতে কোটি টাকার ভ্যাট লুটে নিচ্ছে পাবলিক সিন্ডিকেট, কিছুই জানেন না রাজস্ব বিভাগ’’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ করেছেন, রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমিতি লিমিটেড’র কার্য্যকরী পরিষদ।

আজ সোমবার (১৪জুন) রাত ৮টায় গন্যমাধ্যমে প্রেরিত রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমিতি লিমিটেড’র সভাপতি মো: মিজান ও সাধারণ সম্পাদক মো: মহিউদ্দিন পেয়ারুর স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়।

রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমিতি লিমিটেড’র এ প্রতিবাদ লিপিতে বলা হয়, সমিতিকে জড়িয়ে ভ্যাট আদায় মর্মে যে সংবাদ প্রচার করা কিংবা প্রকাশিত হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

বিবৃতিতে আরো উল্লেখ করা হয়, ভ্যাট আমাদের দেশের রাষ্ট্রীয় সম্পদ। ভ্যাটের টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা হয় এবং দেশের উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখে। রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমিতি লিমিটেড কার্য্যকরী পরিষদের কোন সদস্য কিংবা সমিতির কোন সাধারণ সদস্য সরকারি ভ্যাট আদায় করে না, করে থাকেন না। এটি রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী
সমিতির কাজ নয়। রাঙামাটিতে আসবাবপত্র ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ভ্যাট আদায়ের কোন তথ্য আমাদের/সমিতির কাছে নেই। সরকারি ভ্যাট আদায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ছাড়া কেউ আদায় করার অধিকার কিংবা এখতেয়ার রাখে না। একমাত্র রাজস্ব বিভাগই এ দায়িত্ব পালন করে থাকেন। রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী
সমিতিকে জড়িয়ে অবৈধভাবে সরকারি ভ্যাট আদায়ের যে অভিযোগটি করা হয়েছে তা
সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। আমরা সমিতির পক্ষ থেকে উক্ত সংবাদে বর্ণিত অভিযোগকারী ও প্রকাশিত নিউজের তীব্র-নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

বিবৃতিতে আরো উল্লেখ করা হয়, রাঙামাটি আসবাবপত্র ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমিতি লিমিটেড’র দুই-এক জন সদস্য ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের জন্য ও সমিতির সাথে ব্যবসায়িক মনোমালিন্যের কারণে তারা সমিতির বিরুদ্ধে
প্রতিহিংসামূলক সদস্যদের চরিতার্থ করার জন্য সমিতির বিরুদ্ধে নির্বিচারে এহেন মিথ্যাচার কর্মকান্ডে লিপ্ত হয়েছে। আমরা মনে করি, সমিতি তথা প্রতিষ্ঠানের সততা ও জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্তিত হয়ে একটি কুচক্রী মহল/পরাজিত শক্তি সমিতির বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত ষড়যন্ত্র করে আসছে এবং চেষ্টা করে যাচ্ছে। এসব ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে সকলকে সজাগ থাকার আহবান জানাচ্ছি।
(প্রেস বিজ্ঞপ্তি)