বান্দরবানে পূজা মন্ডপ গুলোতে চলছে শেষ মূহুর্তের প্রস্তুতি।


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ২৮/০৯/২০২২, ২:৪৩ PM / ১৫
বান্দরবানে পূজা মন্ডপ গুলোতে চলছে শেষ মূহুর্তের প্রস্তুতি।

মাত্র আর ক’দিন পরই শুরু হবে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা। এ উপলক্ষে বান্দরবান জেলা শহরে পূজা মন্ডপ গুলোতে শেষ মুহুর্তে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পীরা। পাশাপাশি চলছে মণ্ডপ সাজানোর কাজ।

জেলায় ৩১টি পূজামন্ডপে এবারে এই উৎসব জাঁকজমকভাবে পালন করা হবে। যার মধ্যে শুধু জেলা সদরেই মন্ডপ হবে ১১টি। স্থানীয় রাজার মাঠেই তৈরি করা হচ্ছে কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন পরিষদের আয়োজনে সবচেয়ে বড় এবং আকর্ষনীয় পূজা মন্ডপ।
আধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে দূর্গাদেবীর প্রতিমা ছাড়াও তৈরি করা হচ্ছে নজর কারা বিভিন্ন দেবদেবীর প্রতিমা। আর সনাতন ধর্মালম্বীদের এই বৃহৎম দূর্গাপূজা উৎসবকে সুন্দর ও সফল করতে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতিও সেরে নিচ্ছেন সংশ্লিষ্টরা।

 

প্রতিমা সাজানোর কাজে ব্যাস্ত প্রতিমা শিল্পীরা।

 

হিন্দু ধর্মালম্বীরা জানান, এই বছর কৈলাস হতে দেবী দুর্গা মর্ত্যে আসবেন গজে। শাস্ত্রে আছে দেবীর গজে আগমন শস্যপূর্ণ্য হবে বসুন্ধরা। আর দশমীতে দেবী নৌকায় কৈলাসে ফিরে যাবেন। শাস্ত্র মতে দেবীর নৌকায় গমনের মধ্য দিয়ে ফল শস্য বৃদ্ধি ও জল বৃদ্ধি ঘটে।
বান্দরবান রাজার মাঠে মৃৎশিল্পী মঙ্গল পাল বলেন, প্রতিমা তৈরির কাজগুলি প্রায় শেষের দিকে। এখন রঙ এর আঁচড়ে প্রতিটি প্রতিমাকে আকর্ষণীয় করে তোলার কাজ কিছুটা রয়েছে। তাছাড়া মন্ডপকে আর্কষণীয় তুলতে প্যান্ডেলে কাজও চলছে জোরেশোরে।

বান্দরবান কেন্দ্রীয় দুর্গা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক তাপস কান্তি দাস ব‌লেন, ’গেল দুই বছর কারোনা কারণে ঘটা করে অনুষ্ঠান আয়োজন করতে পারেনি। চলতি বছরে রাজার মাঠে বিশাল আয়োজনে সর্ববৃহৎ পূজা মন্ডেপের বড় করে দুর্গা পূজা উদযাপন করতে যা‌চ্ছি। এখা‌নে ধর্মীয় অনুষ্ঠানমালা পাশাপাশি এক‌টি শারদ মেলা চল‌বে। সব‌কিছু মি‌লি‌য়ে আমা‌দের প্রস্তু‌তি শেষ পর্যা‌য়ে। এসব কিছু‌ দেখ‌তে বান্দরবা‌নে প্রচুর পর্যটক ও দর্শনার্থীরা এখা‌নে বেড়া‌তে আস‌বে ব‌লে আমরা ম‌নে কর‌ছি।

এ বিষয়ে বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি বলেন, বান্দরবান একটি পর্যটন জেলা। প্রতিদিনই এই জেলায় দেশী বিদেশি প্রচুর পর্যটকের আগমন ঘটে, আর সনাতন ধর্মালম্বীদের দুর্গাপূজা উপভোগে এই সময়টা জেলায় আরো অধিক সংখ্যক পর্যটক এর আগমন হয় প্রতিবছর।

তিনি বলেন, বান্দরবান সদরসহ জেলার ৭টি উপজেলায় পূজা মন্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপিত হবে আর শান্তিপূর্ণভাবে যাতে পূজার যাবতীয় কর্মকান্ড সম্পাদন করা যায় সেজন্য প্রশাসন সার্বিক প্রস্তুতি নিয়েছে এবং সকলের সহযোগিতার মাধ্যমে প্রতিবারেরমত এবারে জাঁকজমক আয়োজনে সনাতন ধর্মালম্বীদের দুর্গাপূজা উদযাপিত হবে।

দুর্গাপূজা আয়োজক কমিটি জানায়, আগামী ১লা অক্টোবর সন্ধ্যায় মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জলন ও দেবীর মুখোন্মোচনের মধ্যে দিয়ে শুরু হবে এবারের দুর্গোৎসব। পাঁচদিনব্যাপী বান্দরবান সদরসহ ৭উপজেলায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে মহাসমারোহে এই শারদীয় উৎসব উদযাপন হবে।

সন্ধ্যায় শারদীয় দুর্গোৎসবের উদ্বোধন করবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরপরই মহামায়া দেবী দূর্গার আর্বিভাব ও দেবতা কর্তৃক অস্ত্রপ্রদান প্রদর্শনী, আরতি প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, শরৎ মেলাসহ নানান আয়োজন রয়েছে।এছাড়াও বান্দরবানে ৭টি উপজেলার পূঁজা মন্ডপগুলোতে সর্বত্র ব্যাপক আয়োজন করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

বান্দরবানে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস উদযাপন।