বান্দরবানে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের মধু পুর্ণিমা উদযাপন।


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ০৯/০৯/২০২২, ১১:০৯ AM / ১৩
বান্দরবানে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের মধু পুর্ণিমা উদযাপন।

ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে যথাযথভাবে বান্দরবানে মধু পূর্ণিমা উদযাপন করছেন বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা ।

৯ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকালে বান্দরবান শহরে কেন্দ্রীয় বৌদ্ধ বিহারেগুলোতে বিভিন্ন ফুলফল, মধুদান ও অর্থদান মধ্যদিয়ে বৌদ্ধ ধর্মবলম্বীরা মধু পুর্ণিমা উদযাপন পালম করা হয়।

এদিকে দিনটি উপলক্ষে বালাঘাটা, কালাঘাটা, উজানী পাড়া, বিহারগুলোতে সহ প্রত্যেক গ্রাম গুলোতে সকাল থেকেই বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষেরা বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারে বিহারে প্রার্থনার জন্য জড়ো হতে থাকেন। এ সময় শত শত বৌদ্ধ নর-নারী বৌদ্ধ বিহারে গিয়ে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের ফলমূল বিভিন্ন খাবার ও মধু দান করেন। পাশাপাশি ধর্মদেশনা দিয়ে সকলের মঙ্গল কামনায় প্রার্থনা করেন।

এ সময় পূজনীয় ভিক্ষুসংঘের উদ্দেশ্য মধুদান,সংঘদান, অর্থদান,অষ্টপরিষ্কার দান ও হাজার প্রদীপ প্রজ্বালনসহ নানা কর্মসূচি পালন করা হয়।

বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা মতে, বহুবছর আগে এ পূর্ণিমাতে বুনোহাতি বন থেকে ফলমূল সংগ্রহ করে ও একটি বানর মৌচাকের মধু নিয়ে তপস্যারত বুদ্ধকে দান করেছিল। ওই ঘটনাকে স্মরণ করেই প্রতিবছরের ভাদ্র মাসের পূর্ণিমা তিথিকে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা এই মধু পূর্ণিমা উদযাপন করেন।

বৌদ্ধদের দ্বিতীয় বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান হলো এই মধু পূর্ণিমা। মধু পূর্ণিমার অপর নাম ভাদ্র পূর্ণিমা। ভাদ্র মাসে এ পূর্ণিমা তিথি অনুষ্ঠিত হয় বলে মধু পূর্ণিমাকে অনেকেই ভাদ্র পূর্ণিমা বলে থাকে।

এদিকে মধু পূর্ণিমা উপলক্ষে সকালে বান্দরবান কেন্দ্রীয় উজানি পড়া বুদ্ধ বিহারে সমবেত হয়ে মধু দান পাশাপাশি পূজা সামগ্রী দান করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

 

 

আজ মধু পূর্নিমা।