বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা।


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ০৬/০৮/২০২২, ৬:৩৪ PM / ১৩৪
বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা।

বান্দরবান সেনা রিজিয়ন এর উদ্যোগে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংস্কৃতিবোধ,দেশপ্রেম, সম্প্রীতি ও ভালোবাসা সৃষ্টি, এবং সৃজনশীলতা বিকাশের উদ্দেশ্যই এই প্রতিযোগিতার মূল প্রতিপাদ্য।

শনিবার (৬ আগস্ট) সকালে বান্দরবান জোনের আওতাভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে এই চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
পরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অডিটোরিয়ামে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান এর রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো.জিয়াউল হক এনডিসি,এএফডাব্লিউসি,পিএসসি।

এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান জোন এর কমান্ডার লে.কর্নেল মাহমুদুল হাসান,পিএসসি,ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ এর অধ্যক্ষ লে.কর্নেল সিরাজুল ইসলাম উকিল,সেনা রিজিয়ন এর জেএসও-৩ (শিক্ষা) ক্যাপ্টেন ফয়সাল।

পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠানে রিজিয়ন কমান্ডার মো.জিয়াউল হক উপস্থিত কোমলমতি শিক্ষার্থীদের প্রতি শুভকামনা জানিয়ে চিত্রাঙ্কনের মতো সৃজনশীল একটি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার জন্য তাদেরকি ধন্যবাদ জানান।

এসময় তিনি চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার বিভিন্ন গ্রুপে বিজয়ী ৫০ শিক্ষার্থীর হাতে পুরস্কার তুলে দেন।বান্দরবান সেনা রিজিয়ন সুত্রে জানা যায়,একইদিন বান্দরবান জোনের সাথে সামঞ্জস্য রেখে আলীকদম,রুমা,নাইক্ষ্যংছড়ি এবং বলিপাড়া জোনের আওতাভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর শিক্ষার্থীদের নিয়ে স্ব-স্ব জোনের ব্যবস্থাপনায় একযোগে জেলার ইতিহাসে সর্ববৃহৎ একটি চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হলো।

তিনি বলেন,বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পার্বত্য চট্টগ্রামে বসবাসরত বাঙ্গালিসহ সকল ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠী জনসাধারণের আপদকালীন সময়ে তাদের পাশে থেকে সর্বাত্মক সহায়তা প্রদান করে আসছে।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সেতুবন্ধন তৈরির অংশ হিসেবে আজকের এই চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা তারই একটি দৃষ্টান্তমূলক উদাহরণ।

এছাড়া জাকজমকপূর্ণ এই চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর শিক্ষক,অভিবাবক,প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

 

গলায় শাড়ি পেচিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা।