বিশ্বকাপ জিততে না পারলে কোহলিকে অধিনায়কত্ব ছাড়তে হবে


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ২৪/০১/২০২১, ৬:০৮ AM / ১০
বিশ্বকাপ জিততে না পারলে কোহলিকে অধিনায়কত্ব ছাড়তে হবে

প্রসঙ্গটি নিয়ে এত দিন কথা শুনতে শুনতে বিরাট কোহলির কান ঝালাপালা হয়ে যাওয়ার কথা!

মহেন্দ্র সিং ধোনির কাছ থেকে যখন ভারতের অধিনায়কত্বের ব্যাটনটা পাকাপাকিভাবে নিয়েছেন, ঠিক তখন থেকেই অধিনায়ক হিসেবে তাঁর কার্যকারিতা ও সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে, এখনো উঠছে। খেলোয়াড় তো বটেই, ভারতের অধিনায়ক হিসেবেও কোহলির গর্ব করার মতো অনেক সাফল্যই আছে। কিন্তু নিন্দুকদের সেগুলো যেন চোখেই পড়ে না!

উল্টো বড় হয়ে দেখা দেয় অধিনায়ক কোহলির ব্যর্থতাগুলো। আর তাঁদের গুঞ্জনের পালে আরেকটু হাওয়া লাগে বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে কোহলির ট্রফিহীনতায়। কোহলিকে অধিনায়ক রাখলে ভারত বৈশ্বিক কোনো টুর্নামেন্ট আদৌ জিততে পারবে কি না, সেটা নিয়ে প্রচুর কথাবার্তা হয়েছে, হচ্ছে। এবার সেই আলোচনায় যোগ দিয়েছেন সাবেক ইংলিশ স্পিনার মন্টি পানেসার।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই স্পিনার ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন, অধিনায়ক হিসেবে ওয়ানডে কিংবা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ না জিততে পারলে কোহলিকে ভারতের অধিনায়কত্ব করা ছেড়ে দিতে হবে। ২০১৭ সাল থেকে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ভারতকে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন কোহলি। বিশ্বকাপ তো দূর, চ্যাম্পিয়নস ট্রফিও জেতেনি ভারত তাঁর অধীনে। ২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে পরাজয়টা আবার এসেছিল চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের কাছ থেকে। গত বিশ্বকাপেও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনালে হেরে বিদায় নিয়েছিল ভারত।
মন্টি পানেসার—যখন খেলতেন।

মন্টি পানেসার—যখন খেলতেন। । ছবি: এএফপি

পানেসারের মতে, এরপর এভাবে বৈশ্বিক কোনো টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিলেই অধিনায়কত্ব ছাড়তে হবে কোহলিকে, ‘আগামী ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারতে হচ্ছে। ভারত যদি এই দুই বিশ্বকাপের একটাও না জেতে, তাহলে অবশ্যই কোহলিকে অধিনায়কত্ব ছাড়তে হবে। তার অধিনায়কত্বে সমস্যা নেই কিন্তু সেটা প্রমাণ করার জন্য অবশ্যই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কিংবা ওয়ানডে বিশ্বকাপ জিততে হবে।’

শুধু তাই নয়, পানেসারের কাছে কোহলির অধিনায়কত্বের ধরন অনেকটা একনায়কের মতো মনে হয়েছে। যে দলে এর মধ্যেই রোহিত শর্মা ও অজিঙ্কা রাহানের মতো নেতা আছেন, একনায়কসুলভ মনোভাব দিয়ে তাঁদের কীভাবে নেতৃত্ব দেন কোহলি, সেটাও দেখতে চান পানেসার। এমনিতে জাতীয় দলের অধিনায়কত্ব না পেলেও আইপিএলের সফলতম অধিনায়কদের মধ্যে একজন রোহিত। ওদিকে পারিবারিক কারণে অস্ট্রেলিয়া সিরিজ থেকে চলে যাওয়ার পর অজিঙ্কা রাহানেই তাঁর ঠান্ডা মস্তিষ্কের নেতৃত্ব দিয়ে ভারতকে বোর্ডার-গাভাস্কার ট্রফি জিততে সাহায্য করেছেন।

পানেসারের মতে, ড্রেসিংরুমে এমন স্বভাবজাত নেতাদের কোহলি কীভাবে সামলিয়ে ভারতকে সিরিজ ও ট্রফি জেতাতে পারেন, সেটাই কোহলির অধিনায়কত্বের পরের ধাপ, ‘আসলে এটা খুবই চমকপ্রদ একটা বিষয়। আমার মনে হয় রাহানে কিংবা রোহিতকে যখন অধিনায়কত্ব দেওয়া হয়, তখন ওদের রসায়নটা বেশ ভালো জমে ওঠে। এখন কোহলির দায়িত্ব হলো এমন নেতাদের সে কীভাবে সামলাতে পারে। সামলিয়ে কীভাবে ভারতকে জয়ের পথে নিয়ে যেতে পারে। ও অধিনায়কত্বের ক্ষেত্রে একনায়কসুলভ মনোভাব পছন্দ করে, কিন্তু দলের সাফল্যের জন্য বাকিদের কথাও শুনতে হবে কোহলিকে।’

কোহলি কি শুনছেন?