রামগড়ে মাদকবাহী সিএনজি ছেড়ে দেয়ায় দুই পুলিশ সদস্য ক্লোজড


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ১৩/০৫/২০২৩, ১১:০৫ PM / ১৪১
রামগড়ে মাদকবাহী সিএনজি ছেড়ে দেয়ায় দুই পুলিশ সদস্য ক্লোজড

রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি।

খাগড়াছড়ির রামগড়ে মাদকদ্রব্যবাহী সিএনজি চালিত অটো রিকশা আটক করে থানায় এনে পরে ছেড়ে দেয়ার ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্যকে জেলা পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে। তারা হলেন পুলিশের এএসআই মো: মনিরুল ইসলাম ও কনস্টেবল মো: রবেল হোসেন।

শুক্রবার(১২ মে)  তাদেরকে রামগড় থানা থেকে ক্লোজড করে জেলা পুলিশ লাইনে পাঠিয়ে দেয়া হয়। রামগড় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: নাজিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
জানাযায়, বৃহষ্পতিবার বেলা ৩টার দিকে পৌরসভার মহামুনি এলাকায় রামগড় থানার এএসআই মনিরুল ইসলাম ও কনস্টেবল রুবেল হোসেন  একটি সিএনজি অটো রিকশা আটক করেন। এসময় ঐ অটো রিকশার যাত্রী  মো: আসলাম নামে এক যুবকের দেহ তল্লাসী করে ইয়াবা পাওয়া গেলে  সিএনজিসহ তাকে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। কিন্তু উর্ধতন কর্মকর্তাদের অগোচরে আটক সিএনজি ও  চালককে থানা থেকে ছেড়ে দেয়া হয়। পরে ঘটনাটি নজরে আসার পর উর্ধতন কর্মকর্তরা এএসআই মনিরুল ও কনস্টেবল রুবেলকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

সন্তোষজনক জবাব না পেয়ে বিষয়টি জেলা পুলিশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হলে  ঘটনার সাথে জড়িত এএসআই মনির ও কনস্টেবল রুবেলকে জেলা পুলিশ লাইনে ক্লোজড করার নির্দেশ দেয়া হয়।এরপ্রেক্ষিতে শুক্রবার তাদেরকে  রামগড় থানা থেকে প্রত্যাহার করে জেলা পুলিশ লাইনে পাঠিয়ে দেয় হয়।
রামগড় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: নাজিম উদ্দিন বলেন,‘ ঘটনাটি জানার পর জেলা পুলিশ সুপার মহোদয়কে অবহিত করা হয়। স্যারের নির্দেশেই ঐদুজনকে ক্লোজড করে জেলায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

এদিকে, মাদকসহ আটক আসলামের নামে থানায় একটি মামলা রুজু হয়েছে।আসলাম ফটিকছড়ির ভুজপুরের মতিন নগর গ্রামের মৃত নূর হোসেনের ছেলে। তবে থানা থেকে ছেড়ে দেয়া সিএনজি অটো রিকশার চালকের নাম পরিচয় জানা যায়নি।