লামা উপজেলা প্রশাসন প্রধানমন্ত্রীর ৭৬ তম জন্মদিন পালন।


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ২৮/০৯/২০২২, ৬:৩৪ PM / ১৩৫
লামা উপজেলা প্রশাসন প্রধানমন্ত্রীর ৭৬ তম জন্মদিন পালন।

জাহিদ হাসান,লামা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬ তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে ২৮ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টায় কেক কাটেন উপজেলা প্রশাসন। সারা দেশের ন্যয় পার্বত্য লামা উপজেলায় পালিত হয়েছে প্রধান মন্ত্রীর জন্মদিন। লামা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বুধবার কেক কেটে জন্মদিন পালন হয়। উপজেলা সভাকক্ষে নির্বাহী অফিসার মোস্তফা জাবেদ কায়সারের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল।বিশিষ অতিথি হিসেবে আলোচনায় অংশ নেন, ভাইস চেয়ারম্যান জাহেদ উদ্দিন, ওসি শহিদুল ইসলাম চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পার্বত্য মন্ত্রীর প্রতিনিধি প্রদীপ কান্তি দাশ, লামা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসর ডাঃ নুর মোহাম্মদ প্রমূখ। আলোচকরা প্রধান মন্ত্রীর জীবন আলোকপাত করে বলেন, ১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন শেখ হাসিনা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছার জ্যেষ্ঠ সন্তান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি তিনি। চতুর্থ বারের মতন প্রধানন্ত্রী হয়ে তিঁনি অর্থনীতির প্রতিটি সূচকে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বের কাছে বাংলাদেশকে একটি রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন তিঁনি। সন্ত্রাস ও জঙ্গি দমনেও বিশ্বনেতাদের প্রশংসা কুড়িয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিয়ানমারে জাতিগত সহিংসতায় পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা মুসলমানদের আশ্রয় দিয়ে সারা বিশ্বে হয়েছেন প্রশংসিত। বাংলাদেশকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। প্রধানমন্ত্রীর গতিশীল নেতৃত্বে করোনাকালেও দেশের প্রবৃদ্ধি এশিয়ায় প্রায় সব দেশের ওপরে। বাংলাদেশের ধারাবাহিক উন্নয়নের পাশাপাশি শেখ হাসিনার ঝুলিতে জমেছে অনেকগুলো অর্জন।

পেয়েছেন আন্তর্জাতিক অনেক সম্মাননা ও পদক। এ পর্যন্ত শেখ হাসিনাকে দেয়া আন্তর্জাতিক পুরস্কারের সংখ্যাও অনেক। বক্তারা বলেন, টিকাদান কর্মসূচিতে বাংলাদেশের সফলতার জন্য ২০১৯-এর ২৩ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘ভ্যাকসিন হিরো’ পুরস্কার দেয় গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিনেশন এবং ইমিউনাইজেশন (জিএভিআই)। একই মাসে শেখ হাসিনাকে ড. কালাম স্মৃতি ইন্টারন্যাশনাল এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড পদক দেয়।

এর আগে বিশ্বের বিভিন্ন স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয় ও ইনস্টিটিউট শান্তি প্রতিষ্ঠা, গণতন্ত্র সমুন্নত রাখা ও আর্থসামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে বিভিন্ন পর্যায়ের পদক দেয়। রোহিঙ্গা ইস্যুতে দূরদর্শী নেতৃত্ব এবং রোহিঙ্গাদের আশ্রয়দানে দায়িত্বশীল নীতি ও তার মানবিকতার জন্য আইপিএস ইন্টারন্যাশনাল এচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড এবং ২০১৮ সালে স্পেশাল ডিসটিংশন অ্যাওয়ার্ড ফর লিডারশিপ গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। অপর দিকে দলীয় প্রধান প্রধান মন্ত্রীর জন্ম দিন পালনের প্রস্তুতী সম্পন্ন করেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলী লামা উপজেলা শাখা ও বিভিন্ন সহযোগী সংগঠন। লামা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক পৌর মেয়র মোঃ জহিরুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ কান্তি দাশ জানান, “মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর ৭৬ তম জন্ম পালনের প্রস্তুতী নেয়া হয়েছে।

 

 

 

বান্দরবানে পূজা মন্ডপ গুলোতে চলছে শেষ মূহুর্তের প্রস্তুতি।