লামা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন।


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ১১/০৯/২০২২, ১২:০৪ AM /
লামা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন।

জাহিদ হাসান,লামা প্রতিনিধি।।

বান্দরবানের লামা উপজেলা, শহর ও কলেজ ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ শহিদুল ইসলাম সাদ্দাম, সাধারন সম্পাদক, মেহেদী হাসান রণি।শহর ছাত্রলীগের সুমন মাহম্মদ সভাপতি ও ফখরুল ইসলাম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছে।

লামা সরকারি মাতামুহুরী ডিগ্রি কলেজে কমিটির সভাপতি হিসেবে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হন সালাউদ্দিন ভুঁইয়া নাহিদ, সাধারণ সম্পাদক পদে জয়লাভ করেন আরিফুল হক।নির্বাচিতদের দিয়ে নতুনভাবে তিন ছাত্র সংগঠনের আংশিক কমিটি ঘোষনা করেছেন বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাওসার সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক জনি সুশীল। ১০ সেপ্টেম্বর (শনিবার) এক বছরের জন্য এই কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

অবশেষে দীর্ঘ প্রায় ৬ বছর পর লামা উপজেলা ও পৌরসভা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
৯ বছর পর একই দিন নির্বাচন হয়, মাতামুহুরী সরকারি কলেজ শাখার।লামা আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন সম্মেলন প্রস্তুতী কমিটির আহ্বায়ক/ উজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মংক্যাহ্লা। সম্মেলন আয়োজন করে লামা উপজেলা ছাত্রলীগ।প্রধান অতিথি ছিলেন, বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বান্দরবান পৌর মেয়র মোঃ ইসলাম বেবী।

সম্মেলন প্রস্তুতী কমিটির সদস্য সচিব লামা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহীন এর সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি (প্রিজাইডিং অফিসার) অফিসার বাথোয়াইচিং মার্মা, সিনিয় সহসভাপতি লামা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল, সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মোঃ জহিরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক পার্বত্য মন্ত্রীর প্রতিনিধি প্রদীপ কান্তি দাশ। জানাযায়, সর্বশেষ ২০১৭ সালে লামা উপজেলা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

ওই সম্মেলনে মংক্যাহ্লা মার্মাকে সভাপতি ও মোঃ শাহীনকে সাধারণ সম্পাদক করে একটি পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠিত হয়েছিল। একই সময় শহর ছাত্রলীগের সম্মেলন হয়েছিল। সভাপতি বিপ্লব নাথ, সাধারণ সম্পাদক ছিল সুমন মাহমুদ। তার ও আগে কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি হয়েছিল।

এর পর কয়েক দফা মেয়াদ শেষ হলেও সাংগঠনিক জটিলতা ও করোনার কারণে এতদিন সম্মেলন আয়োজন করতে পারেনি লামা উপজেলা ছাত্রলীগ।অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর কেন্দ্রীয় নির্দেশে (আজ)১০ সেপ্টেম্বর শনিবার লামা উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সারা উপজেলায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে।

ছাত্রলীগের একজন নেতা জানান, মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেলেও ছাত্রলীগের সম্মেলন হচ্ছিল না। চলতি বছরের শুরুতে সম্মেলনের উদ্যোগ নেওয়া হলেও তা পিছিয়ে যায়। কেন্দ্র থেকে সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটি গঠনের নির্দেশনা আসায় এবার দলের ত্যাগী ও তৃণমূলের ছাত্রনেতাদের নিয়ে নতুন কমিটি গঠনের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। এতে লামা উপজেলা, শহর ও কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম আরো গতিশীল হবে বলে মনে করা হচ্ছে।নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সম্মেলন স্থানসহ শহরের রাস্তার পাশে এবং দেয়ালে নতুন পদ প্রত্যাশী ছাত্রলীগের নেতাদের ব্যানার ও পোস্টারে লাগানো হয়। প্রার্থীরা স্বস্ব সমর্থকদের নিয়ে পৃথক পৃথক মিছিল-শোডাউন করেন।

শনিবার বেলা ১০ টায় বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মোঃ বেবী ইসলাম সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন।সম্মেলন উদ্বোধন করেন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাওসার সোহাগ। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জনি সুশীল।উপজেলা শাখায় সভাপতি পদে প্রার্থীতা করেচেন, মোঃ শামিম ওসমান, মোঃ শহিদুল ইসলাম সাদ্দাম, মোঃ সাদ্দাম হোসেন রাকিব, বিপ্লবনাথ, এখ্যাইমং মার্মা। সাধারণ সম্পাদক পদে রুবেল হাসান, সজীব মল্লিক ও মেহেদী হাসান রনি। পৌর শাখার সভাপতি পদে মোঃ রহিম উদ্দিন রাজু গাজী ও সুমন মাহম্মদ। সাধারণ সম্পাদক পদে মহীন উদ্দিন শাওন, মোঃ ইকবাল হোসেন ইমন ও ফখরুল ইসলাম হেলাল। কলেজ শাখায় সভাপতি পদে সালাউদ্দিন ভুঁইয়া নাহিদ, তার কোন প্রতিদ্বন্ধি নেই। সাধারণ সম্পাদক পদে মোঃ খাইরুল ইসলাম বাপ্পি ও আরিফুল হকের প্রার্থীতা চুড়ান্ত করা হয়।

 

 

 

লামা উপজেলা,পৌর,কলেজ ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত।