সকল ধর্মের মানুষের মাঝে সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে – পার্বত্য মন্ত্রী


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ১০/০৪/২০২২, ৯:৫৫ PM / ১০
সকল ধর্মের মানুষের মাঝে সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে – পার্বত্য মন্ত্রী

মোঃ শহীদুল ইসলাম রানা,(সংবাদদাতা):
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বান্দরবান পার্বত্য জেলা শাখার আয়োজনে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ১ম রমজান থেকে জেলার সাধারণ রোজাদারদের জন্য বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্ছের হলরুমে ইফতারের আয়োজন করা হয়েছে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এর পক্ষ হতে ছাত্রলীগ বান্দরবান পার্বত্য জেলার আয়োজনে পুরো রমজানের মাস ব্যাপি জেলার সাধারণ মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরন ও প্রতিদিন জেলা সদরে ইফতারের সময় জেলার বঙ্গবন্ধু মুক্ত মঞ্চে সাধারণ রোজাদারদের জন্য ইফতারের আয়োজন করে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতা ১০ই এপ্রিল রবিবার জেলার বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্ছে ছাত্রলীগের আয়োজনে মাস ব্যাপী ইফতার মাহফিলে অংশগ্রহন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

এ সময় ইফতার মাহফিলে আরো অংশগ্রহণ করেন আওয়ামী লীগ জাতীয় কমিটির সদস্য আব্দুর রহিম চৌধুরী,  জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও বান্দরবান পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য মোজাম্মেল হক বাহাদুর, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষী পদ দাশ,পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি অমল কান্তি দাশ,সাধারণ সম্পাদক সামশুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অজিত কান্তি দাশ,জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য মোঃ মহিউদ্দিন,জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি কাউছার সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক জনি সুশীল সহ জেলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগ, জেলা ছাত্রলীগের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও জেলার সুশীল সমাজের প্রতিনিধি বৃন্দ,ব্যাবসায়িক নেতৃবৃন্দ, গণমাধ্যম সাংবাদিক বৃন্দ ও প্রশাসনের ব্যাক্তিবর্গ ইফতার মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন।

ছাত্রলীগের আয়োজনে মাসব্যাপী ইফতার মাহফিলে অংশগ্রহণ করে পার্বত্য মন্ত্রী বলেন বান্দরবান সম্প্রতির একটি জেলা এখানে নানা ধর্মের বিভিন্ন জাতী গোষ্টী মানুষের মাঝে ভাতৃত্ব সূলভ সম্পর্কে সম বসবাস।আমাদের সকলের উচিত পার্বত্য বান্দরবানে সম্প্রতির এই বন্ধনকে টিকিয়ে রাখা। মন্ত্রী আরো বলেন প্রতি বছরের মত জেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে বান্দরবানে সাধারণ রোজাদারদের জন্য এই ইফতারের আয়োজন করা হয়ে থাকে,জেলা ছাত্রলীগের এই মহতি উদ্যোগকে আমি স্বাদু বাদ জানাই।

এসময় মন্ত্রী নিজ হাতে রোজাদারদের ইফতার সামগ্রী বন্টন করতে সহায়তা করেন। পার্বত্য মন্ত্রীর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যের পর মোনাজাতের মাধ্যমে বাংলাদেশের শান্তিশৃঙ্খলা বজায় থাকার পাশাপাশি, জনসাধারনের জন্য দোয়া ও জেলার সকল ধর্মের মানুষের মাঝে শান্তি বজায় থাকার জন্য দোয়া ও বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যাক্তিদের শারীরিক সুস্থতা ও রোগমুক্তির জন্য দোয়া কামনা করা হয়। মোনাজাতের পর সম্মিলিত সকলে একসাথে বসে ইফতার সামগ্রী গ্রহন করেন। জেলার ইসলাম ধর্মাবলম্বী সাধারণ মানুষের জন্য আয়োজিত মাস ব্যাপী এই ইফতার মাহফিলে পার্বত্য মন্ত্রী সকলের সাথে এক কাতারে বসে ইফতার গ্রহনের মধ্য দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন, পার্বত্য বান্দরবানে সাম্প্রদায়িকতার কোন স্থান নেই,সকল ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মানুষের মাঝে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের মাধ্যমেই সম্প্রিতি বজায় রাখা সম্ভব।

উল্লেখ্য এই রমজানে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর এর পক্ষ হতে জেলা সদর সহ উপজেলা গুলোতেও অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরনের কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়ে থাকে।