বান্দরবান জেলা প্রশাসকের বাসভবনে টিউলিপ ফুলের বাগান,দর্শনার্থী ভিড়


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ১১/০২/২০২৪, ৭:৫৯ PM / ১০৫
বান্দরবান জেলা প্রশাসকের বাসভবনে টিউলিপ ফুলের বাগান,দর্শনার্থী ভিড়

জয়বাংলা নিউজ ডেস্ক।

 

বান্দরবান জেলা প্রশাসক শাহ্ মোজাহিদ উদ্দিনের বাসভবনে টিউলিপ ফুলের বাগান করা হয়েছে। ফুলের সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে প্রতিদিন দর্শনার্থী ভিড় করছেন টিউলিপ ফুলের বাগানে।

এই ফুল বাগানে ৬ রঙের টিউলিপ ফুল ফুটেছে। যত শীত পড়বে টিউলিপের জন্য তত ভালো। কিন্তু কুয়াশা পড়লে ফুলের জন্য ক্ষতি। এজন্য সানশেড দেওয়া হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ মোজাহেরুল হক জানান, গত ১০ জানুয়ারি ৫০০ বীজ লাগানো হয় ৪-৫ দিনের মাথায় (১৫-১৬ জানুয়ারি) চারা গজিয়ে এক মাসের মধ্যে পরিপূর্ণ ফুল হয়ে ফুটেছে।  গাজিপুর থেকে বীজ সংগ্রহ করা হয়েছিল। এই টিউলিপ আবার নেদারল্যান্ডস থেকে গাজীপুরে আনা হয়েছিল, গাজীপুর থেকে বর্তমান জেলা প্রশাসক শাহ্ মোজাহিদ উদ্দিন বান্দরবানে এনে জেলা প্রশাসকের বাসভবনের সম্মুখে অল্প জায়গায় এই টিউলিপ ফুলের বাগান করেছেন বলে তিনি জানান।

বান্দরবানে এটি প্রথম পরীক্ষামূলকভাবে চাষ করা হচ্ছে। এটি সফল হলে পরবর্তীতে যে কেউ বাণিজ্যিকভাবে চাষাবাদ করলে লাভবান হতে পারবেন বলে জানান  জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও এনডিসি শেখ আব্দুল্লাহ আল মামুন।

বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএডিসি) সহকারী পরিচালক কৃষিবিদ নাজিব কুমার তঞ্চঙ্গ্যা জানান, টিউলিপ ফুল সর্বত্র পাওয়া যায় না এইফুল আসলে দুর্লভ। সারা বিশ্বে টিউলিপের অনেক উন্নত জাত থাকলেও মূলত টিউলিপের তিনটি শ্রেণি রয়েছে। প্রারম্ভিক ফুল আসা টিউলিপ, মাঝামাঝি ফুল আসা টিউলিপ, দেরীতে ফুল আসা টিউলিপ। টিউলিপ চাষের উপযোগী আবহাওয়া টিউলিপ সম্পূর্ন রোদে বা আংশিক ছায়ায় জন্মানো যায়। টিউলিপ তুষারপাতের ক্ষেত্রে যেমন খুব সংবেদন শীল তেমনি গরম জলবায়ুতেও টিউলিপ বাড়ানো একটু কঠিন বলে জানান তিনি। তবে বান্দরবান জেলায় কোনো কৃষক বাণিজ্যিকভাবে টিউলিপ চাষ করলে বিএডিসি থেকে সার্বিক পরামর্শ প্রদান করা হবে বলে জানান তিনি।