কালাঘাটায় ‘বিষপানে’, এক ব‍্যক্তির মৃত‍্যুর অভিযোগ।


জয় বাংলা নিউজ প্রকাশের সময় : ০৮/০৯/২০২২, ৯:৩৭ PM / ১১৫
কালাঘাটায়  ‘বিষপানে’, এক ব‍্যক্তির মৃত‍্যুর অভিযোগ।

নিজস্ব সংবাদ দাতাঃ-

বান্দরবান শহরের কালাঘাটায় এক ব‍্যক্তি ‘বিষপান’ করে মারা গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মৃত ব‍্যক্তির নাম মো. ফয়সাল টুটুল (৩৫)।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) ভোরে মো. ফয়সাল টুটুল বান্দরবান সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

বান্দরবান সদর থানার কর্তব‍্যরত কর্মকর্তা (ডিউটি অফিসার) সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. কাউছার আজকের পত্রিকাকে বলেন, মো. ফয়সাল টুটুল নামে এক ব‍্যক্তি বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিষপান করে অসুস্থ হলে তাঁর (টুটুল) স্ত্রী স্থানীয়দের সহযোগিতায় বান্দরবান সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন‍্য ভর্তি করায়। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় বৃহস্পতিবার ভোরে মারা যায়।

এ ব‍্যাপারে বান্দরবান সদর থানায় একটি অপমৃত‍্যু মামলা (মামলা নং ১৫) হয়েছে বলে এএসআই মো. কাউছার জানান।

টুটুলের মরদেহ ময়না তদন্তের জন‍্য বান্দরবান সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে মৃত‍্যুর সঠিক কারণ বলা যাবে বলে পুলিশ জানায়।

এদিকে বান্দরবান সদর হাসপাতাল ও নিহত টুটুলের স্ত্রী মনি আক্তার সূত্রে জানা যায়, বুধবার (০৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল চারটার দিকে মো. ফয়সাল টুটুল (পিতা লিয়াকত আলী) জেলা শহরের কালাঘাটায় বাসা থেকে বের হয়ে অসুস্থ হলে এলাকার লোকজন স্ত্রী মনি আক্তাকে খবর দিলে তিনি স্থানীয়দের সহযোগিতায় স্বামী টুটুলকে বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন। টুটুলকে হাসপাতালের পুরুষ ওয়ার্ডের ১২নং শয‍্যায় (বেড) ভর্তি করা হয়। সেখানেই বৃহস্পতিবার ভোরে তিনি মারা যান।

স্থানীয় সূত্র জানায়, টুটুল ও স্ত্রী মনির মধ‍্যে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ হতো। বুধবারও ঘরে স্বামী স্ত্রীর মধ‍্যে ঝগড়া বাঁধে। এক পর্যায়ে টুটুল ঘর হতে বের হয়ে যাওয়ার পর অসুস্থ হয়।

স্ত্রী মনি আক্তার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে জানায়, বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ‍্যে কলহ লেগে থাকতো। তবে বুধবার স্বামী বিষ বা কোনো কীটনাশক খেয়েছে কিনা স্ত্রী বলতে পারেননি। তবে প্রায়ই স্বামী মদ পান করতেন বলে মনি আক্তার জানায়।

 

 

 

যৌন হয়রানির অ়ভিযুক্ত শিক্ষক এজাবুরকে ভোলা পলিটেকনিক্যালে বদলি।